Q & A

শ্বসন কাকে বলে ? শ্বসন এর প্রকারভেদ ।

প্রিয় বন্ধুরা আজকে আমরা কথা বলবো বিজ্ঞানের খুব গুরুত্তপুরন একটি প্রশ্ন নিয়ে তা হলো শ্বসন। শ্বসন যে কোনো জীবের শারীরিক পরিচালনায় অন্যতম অংশ, মানুষসহ বিভিন্ন জীবের দেহকোষে সবসময় নানারকম জৈবিক ক্রিয়া ও প্রক্রিয়া চলছে। এই জৈবিক ক্রিয়া ও প্রক্রিয়া গুলো নিয়ন্ত্রণের জন্য কোষের শক্তির প্রয়োজন। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে শ্বসন কাকে বলে? শ্বসন এর প্রকারভেদ সহ খুঁটিনাটি সব কিছু জানবো। বন্ধুরা তাই আর দেরি না করে সম্পূর্ণ পোস্টটি ভালভাবে পড়ুন।

শ্বসন কাকে বলে ?

যে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় দ্বারা অক্সিজেনের উপস্থিতিতে বা অনুপুস্থিতিতে খাদ্যের দৈহিক জারণের ফলে খাদ্য স্থিতিশক্তি গতি শক্তিতে রূপান্তরিত হয় ও মুক্ত হয় তাকে শ্বসন বলে।

kalerkt-2a-2019-04-07

শ্বসনের বৈশিষ্ট্য :

  • শ্বসন একটি অপচিতিমূলক বিপাক ক্রিয়া।
  • এর ফলে জীবের শুস্ক ওজন হ্রাস পায়।
  • শ্বসন একটি তাপমোচী প্রক্রিয়া।

 

শ্বসন এর প্রকারভেদ

যে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় জীবকোষস্থ খাদ্যবস্তু (শ্বসন বস্তু) মুক্ত অক্সিজেনের উপস্থিতিতে বা অনুপস্থিতিতে উৎসেচকের সহায়তায় জারিত হয়ে কার্বন ডাই-অক্সাইড, জল (কখনো ইথাইল অ্যালকোহল বা ল্যাকটিক অ্যাসিড) উৎপন্ন করে এবং খাদ্যে আবদ্ধ স্থৈতিক শক্তি গতি শক্তি বা তাপশক্তিতে রূপান্তরিত হয়ে মুক্ত হয় তাকে শ্বসন বা Respiration বলে । শ্বসন দুই প্রকারের।

  1. সবাত শ্বসন
  2. অবাত শ্বসন।

 

আপনি পছন্দ করতে পারেন  ঃ

সফটওয়্যার কাকে বলে? কত প্রকার কি কি?

কাজ কাকে বলে ? কাজের প্রকারভেদ।

সবাত শ্বসন

যে শ্বসন পদ্ধতি বায়ুজীবী জীবকোষে শ্বসন বস্তু মুক্ত অক্সিজেন উপস্থিত সম্পূর্ণরূপে জারিত হয়ে জল এবং কার্বন ডাই অক্সাইড পরিণত হয় এবং শ্বসন বস্তু সম্পূর্ণরূপে নির্গত হয় তাকে সবাত শ্বসন বলে।

সবাত শ্বসন এর স্থান : এককোষী প্রাণী অ্যামিবা থেকে শুরু করে উন্নত শ্রেণীর বহুকোষী উদ্ভিদ এবং প্রাণীদেহে প্রতিটি সজিব কোষে এই ধরণের শ্বসন সংঘটিত হয়।

এই ধরণের শ্বসন কোষস্থ খাদ্য প্রধানত গ্লুকোজ কোষের সাইটোপ্লাজমে অক্সিজেন এর উপস্থিতিতে বা অনুপস্থিতিতে কতগুলি উৎসেচকের সহায়তায় আংশিক ভাবে জারিত হয়ে পাইরুভিক অ্যাসিড এ পরিণত হয়। এই প্রক্রিয়াকে EMP পথ বলা হয়।

1 গ্রাম অনু গ্লুকোজ থেকে 686 কিলোক্যালরি শক্তি উৎপন্ন হয়।

 

অবাত শ্বসন

যে শ্বসন পদ্ধতিতে অবায়ুজীবী জীব কোষে মুক্ত অক্সিজেনের অনুপস্থিতিতে শ্বসন বস্তু অক্সিজেনযুক্ত যৌগের অক্সিজেন কর্তৃক জারিত হয়ে কার্বন ডাই অক্সাইড ও জলে পরিণত হয় এবং শ্বসন বস্তু মধ্যস্তশক্তির আংশিক নির্গমন ঘটে তাকে অবাত শ্বসন বলে।

অবাত শ্বসন এর স্থান : অবাত শ্বসন ডিনাইটিফাইং ব্যাকটেরিয়া, সালফার ব্যাকটেরিয়া, মিথেন ব্যাকটেরিয়া তে দেখা যায়।

অবাত শ্বসন 1 গ্রাম অনু গ্লুকোজ থেকে 50 কিলোক্যালোরি তাপশক্তি উৎপন্ন হয়। এটি কোষের সাইটোপ্লাজম এর ঘটে।

 

পরবর্তী সময়ে আবারও হাজির হবো গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে। গুরুত্বপূর্ণ সব প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকুন। এছাড়াও কোনো প্রশ্নের উত্তর জানতে চাইলে তা আমাদের কমেন্ট করে জানান।

আরও দেখুন:

 

Siam Shihab

Hello, I'm Siam Shihab. I write Content about all Trending News and Information. I'm working on this Website since June 2021. You can Visit my Profile page to read all of my content. Thank You so much to know about me.
Back to top button
Close