সোনালী,জনতা এবং কৃষি ব্যাংকের পরীক্ষার তারিখ সহ বিস্তারিত দেখে নিন

bank bd

সরকারি খাতের সোনালী, জনতা, অগ্রণী, রূপালী, বিডিবিএল ও বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে প্রায় ১০ হাজার শূন্যপদে নিয়োগের সিদ্ধান্ত হয়েছে বেশ আগেই। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকার সিলেকশন কমিটির কাছে এসব পদে পূরণের জন্য চাহিদাপত্র দিয়েছে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলো। আগামী ছয় মাসের মধ্যে এসব পদে নিয়োগ সম্পন্ন হবে বলে মনে করছে সিলেকশন কমিটি।

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোয় একসঙ্গে এত নিয়োগ এর আগে কখনো হয়নি। তাই এ নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে নতুন করে আশার সঞ্চার হয়েছে। এখন থেকে নিয়োগের সব ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে কোনো ধরনের অনিয়ম হবে না বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকার সিলেকশন কমিটির কর্মকর্তারা বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক নিয়োগের সব ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করায় কোনো ধরনের জালিয়াতির সুযোগ নেই। শিক্ষার্থীরা ভালো প্রস্তুতি থাকলেই ব্যাংকে যোগদানের সুযোগ পাবে। লিখিত, মৌখিক সব ধরনের পরীক্ষা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তত্ত্বাবধানে থাকায় কোনো ধরনের যোগাযোগ কাজে আসবে না।

জানা গেছে, সরকারি খাতের সব ব্যাংকেই অফিসার, অফিসার (ক্যাশ) ও সিনিয়র অফিসার পদে শূন্যতা বিরাজ করছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে সোনালী ব্যাংকে তিন পদের জন্য ২ হাজার ২৭৬ পদে নিয়োগের লক্ষ্যে আবেদন আহ্বান করা হয়েছে। পাশাপাশি সোনালী ব্যাংকের আইটিতে ৮১২ ও ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ৪১ পদের জন্য শিগগির লিখিত পরীক্ষা শুরু হবে। অফিসার (ক্যাশ) ও সিনিয়র অফিসার পদে জনতা ব্যাংকে তিন ধাপে প্রায় তিন হাজারের কাছাকাছি, রূপালী ব্যাংকে প্রায় ১ হাজার ৫০০ নিয়োগ দেওয়া হবে ইতোমধ্যে ৪২৩ জন সিনিয়র অফিসার নিয়োগের লক্ষ্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে এবং এই সপ্তাহে জুনিয়র অফিসার এবং আইটিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে। অগ্রণী ব্যাংকে প্রায় ১ হাজার নিয়োগ দেওয়া হবে ইতোমধ্যে আবেদন গ্রহণ পক্রিয়া শেষ করা হয়েছে, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে প্রায় ২ হাজার ২০০, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে ৪০০ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। এছাড়া দুই পদে ১২৬ জনকে নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড।

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে সরকারি খাতের ব্যাংকগুলোর জনবল নিয়োগের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে প্রধান করে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি গঠনের প্রজ্ঞাপন জারি করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। অনেক দিন ধরে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে অনিয়ম, দুর্নীতি ও লুটপাট রোধে সৎ, যোগ্য ও মেধাবী কর্মকর্তা নিয়োগ দিতে একটি কমিটি গঠন করার দাবি জানিয়ে আসছিলেন ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তারা; যার পরিপ্রেক্ষিতে গঠন করা হয় ব্যাংকার সিলেকশন কমিটি।

এর পর থেকে সরকারি খাতের সোনালী, রূপালী, অগ্রণী, জনতা, বেসিক, বিডিবিএল, কৃষি, রাজশাহী কৃষি, হাউজ বিল্ডিং, আইসিবি, কর্মসংস্থান, আনসার-ভিডিডি উন্নয়ন, প্রবাসী কল্যাণ ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকে জনবল নিয়োগের দায়িত্ব পালন করছে এ কমিটি।

তবে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি থেকে দফায় দফায় সরকারি ব্যাংকগুলোতে বিভিন্ন পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করলেও বাস্তবে কবে নাগাদ পরীক্ষা হবে সেই বিষয়ে পরিষ্কার করে কিছুই বলছে না,পুর্ববর্তী কৃষি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা এখনো অনুষ্ঠিত হয়নি কিন্তু ইতোমধ্যে সিনিয়র অফিসার পদে আবারো নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি,সোনালী ব্যাংকের পরীক্ষার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত না নিয়েই জনতা অগ্রণী এবং সর্বশেষ রুপালী ব্যাংকে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে ।

যেভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া ঝুলে আছে তাতে করে এগুলো শেষ করতেই প্রায় বছরের বেশী সময় লাগার কথা।

পরীক্ষা কবে নাগাদ হতে পারে এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হয়েছিলো সংশিষ্ট কতৃপক্ষের সাথে কিন্তু তারা কোন সুনির্দিষ্ট তারিখ বলতে পারেনি তবে আশাবাদী দ্রুত সময়ের ভিতরে এসব পদে চূড়ান্ত নিয়োগের ব্যাপারে ইতোমধ্যে সোনালী ব্যাংকের পরীক্ষা গ্রহণের ব্যাপারে দরপত্র আহবান করা হয়েছে এবং একটি বিভাগে ২৯ শে জুলাই পরীক্ষা হবে। সোনালী ব্যাংকের পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় প্রক্রিয়া অনেকটা এগিয়ে গেছে বলে এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত কয়েকটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছেন,আগস্টের ১২ ও ১৯ তারিখের ভিতরে বাকী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার সম্ভাবনা আছে।

কৃষি ব্যাংকের পরীক্ষা ২৬ শে আগস্ট অনুষ্ঠিত হতে পারে এবং জনতা ব্যাংকের ৩৪৪০ টি পদের পরীক্ষা সেপ্টেম্বরের ২,৯,১৬ তারিখে হবার সমূহ সম্ভাবনা আছে।

এই সুত্র আরো জানাচ্ছেন ব্যাংকের কার্যক্রম গতিশীল করার জন্য শূণ্য পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া অতিদ্রুত বাস্তবায়ন করার জন্য তারা যাবতীয় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন এখানে বিলম্ব করার সুযোগ নেই এবং উল্লেখিত সময়ের মধ্য পরীক্ষা গ্রহণের ব্যাপারে তারা যথেষ্ট আশাবাদী।

বিঃদ্রঃ আমাদের সাথেই থাকুন,নিয়োগ ও পরীক্ষা সংক্রান্ত কোন আপডেট পেলেই সেটা আপনাদের সামনে সবার আগেই উপস্থাপন করবো ।