সন্ধি মনে রাখার টেকনিক

নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধিঃ বনস্পতি এবং বৃহস্পতি পরষ্পর দুই ভাই। তাদের বয়স ষোড়শ এবং একাদশ। তারা দুজনে তস্কর। দুজনে গিয়েছে গোষ্পদ চুরি করতে। দেখেছে মনীষা। বলেছে পতঞ্জলির কাছে। পতঞ্জলি শুনে আশ্চর্য হল। এখানে, বনস্পতি ,বৃহস্পতি্,পরষ্পর ,ষোড়শ, একাদশ , তস্কর, গোষ্পদ , মনীষা , পতঞ্জলি , আশ্চর্য নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি।

নিপাতনে সিদ্ধ স্বর সন্ধি

 স্বৈর রাজা  গবেন্দ্র তাঁর দুই মন্ত্রী গবেশ্বরশুদ্ধোদন -কে নিয়ে সকাল বেলার  মার্তণ্ড (সূর্য) দেখবেন বলে গবাক্ষ ( জানালা) পথে তাকালেন ।

একদিকে দেখলেন  শারঙ্গ ( এক প্রকার বাদ্যযন্ত্র ) হাতে এক  প্রৌঢ় ‎কুলটা ( সমাজ যাদের অসতী বলে) নারী। তার সীমন্ত (সিথিঁ ) এলোমেলো

অপরদিকে অক্ষৌহিণী (২১৮৭০০ যোদ্ধাবিশিষ্ট সেনাদল) সহ তাঁর সেনাপতি ও অন্যান্য মন্ত্রী রাজাকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য আসছেন।

মিলিয়ে নিন:

‎স্বৈর, মন্ত্রী , গবেশ্বর ও ‎শুদ্বোধন, ‎মার্তণ্ড, গবাক্ষ, শারঙ্গ, প্রৌঢ় কুলটা, সীমন্ত, অক্ষৌহিণী, অন্যান্য

নিপাতনে সিদ্ধ ব্যঞ্জন সন্ধি:

পতঞ্জলিমনীষা আশ্চর্য হয়ে  পরস্পর তাকায় ।

সেই তস্করকে (চোরকে) তারা চিনে ফেলে।

গত বৃহস্পতিবার ষোড়শ অথবা একাদশ জন মিলে দ্যুলোকের ‎গোষ্পদ আর ‎বনস্পতি এরা ধ্বংস করেছে।

মিলিয়ে নিন:

পতঞ্জলি, ‎মনীষা, আশ্চর্য, পরস্পর, তস্করকে, ‎বৃহস্পতিবার, ষোড়শ, গোষ্পদ, বনস্পতি

বিশেষ নিয়মে সাধিত ব্যঞ্জন সন্ধি:

চুরির ঘটনা তারা কোনো সংস্কার না রেখেই ‎সংস্কৃত ভাষায় পরিষ্কার ভাবে উত্থাপন করে এবং এতে এক পরিস্কৃত সংস্কৃতির উত্থান ঘটে।

মিলিয়ে নিন:

সংস্কার, সংস্কৃত, পরিষ্কার, উত্থাপন, পরিস্কৃত, সংস্কৃতির, উত্থান

 নিপাতনে সিদ্ধ বিসর্গ সন্ধি:

বাচস্পতি বাবুর স্নেহের আস্পদ হরিশ্চন্দ্র । তিনি অহরহ শির:পীড়ায় ভোগেন ।

তাই প্রাত:কালে তিনি ভাস্কর (সূর্য) দেখতে পান না বলে অহর্নিশ মন:কষ্টে আছেন।

মিলিয়ে নিন:

বাচস্পতি, আস্পদ, হরিশ্চন্দ্র, অহরহ, শির:পীড়ায়, প্রাত:কালে, ভাস্কর, অহর্নিশ, মন:কষ্টে