‘বিয়ের আগে শারিরিক সম্পর্ক করতে হবে….’

first love

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক তরুণী জানিয়েছেন তরুণদের প্রেমের খুব কমন এক সমস্যার কথা।

“আমি কখনো ভাবি নাই আমি এই কথাগুলো লিখবো কিন্তু গত এক মাস হল এত কষ্টে আছি যে না লিখে পারলাম না। আমি আমার নাম লিখছি না।

আমি একজনকে ভালবাসি। সেও আমাকে খুব ভালবাসে। আমাদের পরিচয় হয় Facebook-এ। দুবছর চলছে আমাদের সম্পর্কের। কখনো কেউ কাউকে ছেড়ে থাকতাম না। আমরা আমাদের সম্পর্কের কথা বাসায় জানিয়ে দিয়েছি। সবাই মোটামুটি রাজি। কিন্তু কিছুদিন হলো আমাদের সম্পর্ক ভাল যাচ্ছে না।

এতদিন আমি তার সব কথা মেনে চলতাম। না না করে হলেও সবই মানতাম। ইদানীং আর মানতে ইচ্ছা হয় না কারণ সে আমার কোন কথা মানে না। তাই আমি ওকে একটা শর্ত দিয়েছি। কিন্তু সে এই একটি শর্তও মানতে রাজি না। একবার রাজি হয়েছিল, পরে বলেছে মানতে পারবে না। তার কথা হলো বিয়ের আগে শারিরিক সম্পর্ক করতে হবে। যদিও আগে একবার হয়েছে আমাদের শারীরিক সম্পক। কিন্তু আমি আর করতে রাজি নই। আমি মানা করে দেয়ার পর সে বলে আর আমার সাথে কথা বলবে না।

আমি কথা না বলে থাকতে পারি না, তাই ফোন দেই। কিন্তু ও ফোন করতে পরিষ্কার মানা করে দিয়েছে। হয়তো আমাদের বিয়ে হবে ২০১৬ তে। জানিনা এখনো।

আর একটা কথা বলি। এর আগে আমার একজন এর সাথে সম্পর্ক ছিল ৮ মাস। কোন এক কারণে নষ্ট হয়ে যায় ৬ বছর আগে। সেই ছেলেটি ৮মাসে হাত পর্যন্ত ধরেনি। আমার মনে হয় এখন ও আমায় ভালবাসে আর এখন আমার মনে হচ্ছে সেই-ই আমার জন্য ভালো ছিল।

আমি বুঝতে পারছি না আমি কী করবো। একটু বলবেন আমার এখন কি করা উচিৎ? ”

পরামর্শ:

আপু, যে ছেলেটি বিয়ের আগেই শারীরিক সম্পর্কের জন্য এত উতলা হয়েছে যে কথা বলাই বন্ধ করে দিয়েছে, সেই ছেলেটি আসলেই আপনাকে ভালোবাসে এমনটা অন্তত আমার মনে হয় না। এটা কেমন ভালোবাসা যে শরীর না পেলেই যোগাযোগ বন্ধ? এতে বরং স্পষ্ট হয়ে উঠছে যে সে আপনার শরীরের জন্যই আপনাকে ভালোবাসে, আপনার মনের জন্য নয়।

দ্বিতীয় কথা এই যে সম্পর্কে কেউ কারো দাস নয় যে একজন বলবে আর আরেকজন সব মেনে চলবে। সম্পর্ক একটি পারস্পরিক সমঝোতার বিষয়, যেখানে দুজনেই পরস্পরের কিছু কথা মেনে নেন। যে মানুষ প্রেমের সময়েই আপনাকে দিয়ে কথা শুনিয়ে ছাড়ে, বিয়ের পর সে কী করবে?

প্রথমত, আমার মনে হয় এই ছেলেটিকে বিয়ে করার আগে আপনার খুব ভালো করে ভেবে দেখা উচিত। কারণ শরীরের জন্য যে ভালোবাসা তা কখনোই স্থায়ী হয় না। দ্বিতীয় কথা এই যে, বিয়ের আগে সারিরিক সম্পর্কে যা যাবার সিদ্ধান্তটি আপনি খুব ভালো নিয়েছেন। এটিকে মেনে চলুন। প্রথমে যে একবার করে ফেলেছেন, আমার মনে হয় সেটি উচিত হয়নি।

আর শেষ কথা এই যে, আগের প্রেমিক আপনার জন্য ভালো না মন্স, সেটা কেবল বলতে পারবেন আপনি নিজেই। তাই ভালো মত ভেবে দেখুন। হ্যাঁ, ৮ মাসে একটি ছেলে আপনার হাত পর্যন্ত ধরেনি, এটা নিঃসন্দেহে ভালো চরিত্রের পরিচায়ক।

যা করবেন, খুব ভেবে সিদ্ধান্ত নিন। আর ঝোঁকের মাথায় বিয়ের সিদ্ধান্ত নেবেন না

লিংগ বড় করার গোপন কৌশল!