ঘরের মেঝে ঘামছে, আতঙ্কিত হবার কিছু নেই

water floor

মঙ্গলবার সকাল থেকেই সোশাল মিডিয়া সরগরম হয়েছে ঘরের মেঝে ঘেমে যাওয়া নিয়ে। অনেকেই হুট করে ঘরের মেঝে কিংবা দেয়াল ঘেমে যাওয়া নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। আর এই আতঙ্ককে পুঁজি করেই একদল নানা ধরনের ভীতিকর গল্প ছড়াচ্ছেন। কেউ বলছেন সামনে বড় ধরনের বন্যা হবে, কারো মতে এটা ভূমিকম্পের আলামত কিংবা কেউ অন্য প্রাকৃতিক দুর্যোগের কথা বলে বেড়াচ্ছেন। দেশের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম টুইটার ঘরের মেঝে ঘেমে যাওয়ার ছবিতে সয়লাব হয়ে গেছে।

তবে, আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন ঘরের মেঝে ঘামছে স্বাভাবিক নিয়মে আর এটা নিয়ে আতঙ্কিত হবার কিচ্ছু নেই।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেন, হুট করে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় ঘরের মেঝে ঘামছে। এতে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। মঙ্গলবার সকালে তাপমাত্রা ছিল ২০ ডিগ্রি এই মুহূর্তে ৩৪ ডিগ্রি। বেলা বাড়ার সাথে সাথে হুট করে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার ফলে মেঝে ঘামছে। তাপমাত্রা আকস্মিক তারতম্যর কারণে এটা হতে পারে।

বজলুর রশীদ আরো বলেন, কয়েকদিন থেকে বৃষ্টির ফলে তাপমাত্রা নিচে নেমে গিয়েছিল। এখন বাড়ছে। শীতের দিন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত গাড়ির ভেতরও ঘেমে যায়। এর কারণ তাপমাত্রার তারতম্য।