গুগল অ্যাডসেন্স কি? কিভাবে এর মাধ্যমে সহজে আয় করবেন জেনে নিন

এই  মুহূর্তে হয়ত এমন অনেকেই আছেন যারা ইন্টারনেট থেকে আয় করতে চান । আবার অনেকেই Google Adsense (গুগল অ্যাডসেন্স) এর নাম শুনেছেন কিন্তু বিস্তারিত জানেন না। তাদের জন্য আমার এই পোস্ট।

অনলাইনে টাকা উপার্জনের যত উপায় আছে তার মধ্যে Google Adsense হচ্ছে সবচেয়ে জনপ্রিয়। কিন্তু সবার মনে কিছু প্রশ্ন জাগে যে, এটা কি সত্য বা সম্ভব? আমি কি সব সময় Google Adsense থেকে টাকা উপর্জন করতে পারবো? আমি কি ওখান থেকে ‍উপার্জিত টাকা দিয়ে সব কিছু চালিয়ে যেতে পারবো? আজ এই সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশা পাশি আপনাদের দেখাবে কিভাবে সফল ব্লগাররা তাদের ব্লগে Google Adsense হতে টাকা উপার্জন করছে।

Google Adsense কি

ইন্টারনেট বিশ্বের সবাই কম-বেশী Google Adsense সম্পর্কে অবগত আছে। Google Adsense হচ্ছে ইন্টারনেট ভিত্তিক একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থা যেটি গুগল নিজে পরিচালনা করছে। গুগল যত টাকা উপার্জন করে তার ২৭ ভাগ আসে Google Adsense থেকে। এটি Publisher এর জন্য সম্পূর্ণ ফ্রি। আপনি যদি এর একজন পাবলিশার হতে চান তাহলে কোন টাকা ব্যয় করতে হবে না। আপনি খুব সহজে আপনার ব্লগে এই বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে ভালমানের টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

আমরা আমাদের প্রতিদিনের বিভিন্ন কাজের জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ওয়েব সাইট এ ভিজিট করে থাকি , সে সময় দেখা যায় সেই সব সাইটের কোন কোন টিতে ব্যানারের স্থানে বা পাশের সাইড বারে বা পোস্টের মাঝে কত গুলি  লিঙ্ক থাকে আর তাতে লেখা থাকে “ads by Google”। এখন হয়ত আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে “ads by Google” বা এই গুগল অ্যাডসেন্স কি” । হ্যা এই অ্যাডস গুলিই  গুগল অ্যাডসেন্স । আপনি হয়ত জেনে থাকবেন যে আপনি যদি ঐ সব লিংকে ক্লিক করেন তবে ওই সাইটের মালিকের গুগল আডসেন্স এ্যাকাউন্টে কিছু টাকা জমা হবে। আর তাই এখন হয়ত এও জানতে চাইবেন যে কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্স থেকে টাকা আয় করা যায়।

আসলে গুগল অ্যাডসেন্স   হচ্ছে গুগল পরিচালিত একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন। এটি মূলত একটি লাভ-অংশিদারী প্রকল্প যার মাধ্যমে গুগল ও তার ব্যবহারকারী তাদের ওয়েবসাইটে  বিজ্ঞাপন প্রচার করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগের মালিক কিছু শর্তসাপেক্ষে তার সাইটে গুগল নির্ধারিত বিজ্ঞাপণ দেখানর বা স্থাপনের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। আজকের অনলাইন বিশ্বে এই বিষয়টি ব্যপক সাড়া জাগিয়েছে। বিজ্ঞাপণদাতাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত অর্থের ৫০ থেকে ৬০ ভাগ টাকাই  ওয়েবসাইটের  মালিকদের মাঝে ভাগাভাগি করে নেয়।  আর গুগল অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে যেকেউ অর্থ আয় করতে পারে। প্রচুর বাংলাদেশী ব্লগার এবং ওয়েবসাইটের মালিক গুগল অ্যডসেন্সের বিজ্ঞাপণ প্রদর্শণের মাধ্যমে বর্তমানে অর্থ আয় করছেন।

প্রথমেই বলে রাখি গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আপনি যদি ইনকাম করতে চাইলে আপনার একটি নিজের ওয়েব সাইট থাকা দরকার, তবে না থাকলেও যে আয় করা সম্ভব না তাও কিন্তু নয় । এই সাইট টা ফ্রি হলেও চলবে ।

গুগল অ্যাডসেন্সে একাউন্ট কি ভাবে করতে হয়

গুগল অ্যাডসেন্স একাউন্ট এর জন্য প্রথমেই আপনার একটি জিমেইল একাউন্ট থাকতে হবে। গুগল অ্যাডসেন্স একাউন্ট তৈ্রী করতে উপায় নিন্মে ধারাবাহিক ভাবে আলোচনা করা হল ।

  • যদি আপনার জিমেইলে কোন একাউন্ট না থাকে থাকে এখনি একটা একাউন্ট করে নিন । যা সম্পূর্ন ফ্রি ।এখন লগ অন করুন ।
  • google.com/adsense এ গিয়ে sing up বাটনে ক্লিক করুন ।
  • তার পর একটি ফরম আসবে । ফরম এ আপনার ওয়েব সাইট এর নাম , তারপর কোন ভাষায় আপনার ওয়েব সাইট , আপনার Account type ,আপনার Country , আপনার নাম (তবে মনে রাখবেন যেনামে আপনার ব্যাংকের একাউন্ট সেই নাম দিবেন না হলে পরে ঝামেলা হবে) , আপনার Street Address , City/Town , এখন কোথায় থাকেন ইত্যাদি ।ফর্মটি ঠিকভাবে পুরন করে সাবমিট ইনফর্মেশন বাটনে ক্লিক করুন।

আপাতত আপনার কাজ শেষ । এখন গুগলের  একজন ইঞ্জিনিয়ার আপনার রিকোয়স্ট ভ্যারিফাই করবে , আর যদি সব কিছু ঠিক থাকে তবে আপনার একাউন্ট এক্টিভ হবে । তারপরে আপনার সাইটে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আপনিও আয় করতে পারবেন ।

Google Adsense কি

কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে সহজে আয় করবেন ?

Google Adsense থেকে টাকা উপার্জন করার জন্য কি প্রয়োজনঃ Adsense বিজ্ঞাপন থেকে Google যত টাকা আয় করে তার 68 ভাগ টাকাই দিয়ে থাকে পাবলিশারদের এবং বাকী 32 ভাগ টাকা নিজেরা ভোগ করে। কাজেই বুঝতে পারছেন আপনি কি পরিমানে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। Google Adsense থেকে টাকা উপার্জন করার জন্য যা কিছু প্রয়োজন তার মধ্যে গুরুপূর্ন কয়েকটি বিষয় নিম্নে সংক্ষেপে দেওয়া হলো

  1. ভালমানের কনটেন্টঃ কনটেন্ট নিয়ে লেখার আগে বলে রাখছি Google Adsense পাওয়ার জন্য আপনার ব্লগটি অবশ্যই ইংরেজী ভাষার কনটেন্ট যুক্ত হতে হবে। বাংলা কনটেন্টের ব্লগে Google Adsense ব্যবহার করতে পারবেন না। তাছাড়া আমি সবসময় একটা কথাই বলে থাকি যে, আপনি যদি একজন ভালমানের ব্লগার হতে চান তাহলে অবশ্যই ব্লগে ভালমানের নিত্য নতুন আর্টিকেল পাবলিশ করেন। আপনি যে বিষয়টি ভালভাবে জানেন এবং বুঝেন সেই বিষয়টি নিয়ে কারও কাছ থেকে কপি পেষ্ট করা নয় এমন কনটেন্ট পাবলিশ করেন। কারণ Google Adsense সব সময়ই নিত্য নতুন আর্টিকেল পাগলের মত পছন্দ করে।
  2. ভালমানের ওয়েবসাইটঃ শুধুমাত্র আর্টিকেল অর্থাৎ যে কোন আজে বাজে বিষয় নিয়ে লিখলে আপনি একজন ভালমানের ব্লগার হতে পারবেন না। এতে করে আপনার ব্লগের গুনগত মান বৃদ্ধি পাবে না। আপনি যখনই ভালমানের টপিক নিয়ে লিখবেন তখনই আপনার ব্লগটি ভাল মান পাবে। Google Adsense হতে উপার্জিত টাকা তারা খুবই বিশ্বস্ততার সাথে পরিশোধ করে। কাজেই তারা চায় না কোন প্রকার Low Quality এর ব্লগে তাদের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করতে।
  3. ভিজিটরঃ আপনি যত কিছুই নিয়ে ব্লগিং করেন না কেন আপনার টার্গেট হচ্ছে ব্লগে ভিজিটর পাওয়া। আপনি যখন ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর পাবেন তখনই আপনার এত পরিশ্রম সফল হবে। কারণ ভিজিটরহীন ব্লগ এর কোন মানেই হয় না। তাছাড়া Google Adsense হতে কি পরিমানে টাকা পাবেন তা নির্ভর করে করে ভিজিটরের উপর অর্থাৎ আপনার ব্লগে যত বেশী ভিজিটর আসবে আপনার আয়ও তত বাড়তে থাকবে।
  4. কীওয়ার্ড বাছাইঃ ব্লগে বেশী পরিমানে ভিজিটর পাওয়ার জন্য Keyword বাছাই করতে হবে। আপনার ব্লগের কনটেন্ট অনুযায়ী হাই কোয়ালিটির কীওয়ার্ড বাছাই করতে হবে। এতেকরে আপনার ব্লগে ভিজিটর বাড়ার পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের ক্লিক রেটও বাড়বে। এ ক্ষেত্রে আপনি Google Keyword Research Tool এর সাহায্য নিতে পারে। ওখান থেকে জানতে পারবেন আপনার ব্লগ রিলেটেড কোন কোন কীওয়ার্ড ব্যবহার করে ভিজিটর সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করছে এবং কোন কীওয়ার্ডগুলি হাই কোয়ালিটির। সেখান থেকে বেছে বেছে হাই কোয়ালিটির কীওয়ার্ডগুলি আপনার ব্লগে ব্যবহার করবেন।
  5. Google AdSense policies: আপনি হয়তো ভাবছেন যে, Google AdSense একাউন্ট আছে তাই যে কোন অসদ উপায় অবলম্বন করে আয় বাড়ীয়ে নেবেন। কিন্তু মনে রাখবেন Google AdSense একাউন্ট অনুমোদন করা যতটা না কঠিন, তার চেয়ে আরও কঠিন এটিকে ঠিকিয়ে রাখা। কারণ Google AdSense policies পরিপন্থি কোন কাজ করলেই আপনার Account টি Disable হতে পারে। আর একবার Account টি Disable হলে আর কোন দিন তা একটিভ করতে পারবেন না। কাজেই AdSense এ Apply করার আগে এবং Approved করার পরে Google AdSense Policies ভালভাবে পড়ে নিয়ে ১০০ ভাগ মেনে চলার চেষ্টা করবেন। তাহলে আপনার একাউন্ট গুগলের কাছে বিশ্বস্ত হয়ে উঠবে এবং কোন দিনই Disable হবে না।

AdSense এর টাকায় কি জীবন ধারন সম্ভব?

এই প্রশ্নের জবাবে আমি বলবো যে, AdSense থেকে ১০০ ভাগ জীবন ধারন করা বা পরিবার চালিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়। কারণ আপনি এখান থেকে সবসময় ভালমানের টাকা উপার্জন করতে সক্ষম হবেন তার কোন নিশ্চয়তা নেই। দেখা যাবে হয়তো আপনি কোন মাসে বেশ কিছু টাকা উপার্জন করতে সক্ষম হয়েছেন, আবার কোন মাসে সামান্য কিছু টাকা উপার্জন করতে পেরেছেন। তবে এটা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি আপনার ব্লগটি যদি ভালমানের হয়, ভাল কোয়ালিটির কনটেন্ট থাকে এবং প্রচুর পরিমানে ভিজিটর থাকে তাহলে এখান থেকে প্রতিনিয়তই একটা Smart Amount উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। যা দ্বারা আপনার পরিবার পরিচালনা করতে সক্ষম না হলেও অনেকাংশেই সহায়তা করবে।

উপসংহারঃ যেহেতু AdSense অনলাইন থেকে টাকা উপার্জনের সবচেয়ে বড় এবং বিশ্বস্ত একটি মাধ্যম, সেহেতু আমার মনে হয় আপনি ব্লগিংকে পেশা হিসেবে না নিলেও সখ হিসেবে ব্যবহার করে সামান্য কিছু সময় ব্যয় করে, খুব বেশী না হলেও অল্প কিছু টাকা উপার্জন করতে পারবেন। যা আপনার লেখা-পড়া কিংবা পেশার পাশাপাশি সহায়ক হিসেবে কাজ করবে।

ফ্রি ইন্টারন্যশনাল মাস্টারকার্ড নিন ২৫ ডলার বোনাস সহ