কায়কোবাদ নিয়ে আলোচনা ও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন সমূহ

Kaykobad

কায়কোবাদঃ কায়কোবাদ, মহাকবি কায়কোবাদ বা মুন্সী কায়কোবাদ (১৮৫৭ – ১৯৫১) বাংলা ভাষার উল্লেখযোগ্য কবি যাকে মহাকবিও বলা হয়। তাঁর প্রকৃত নাম কাজেম আল কোরায়শী।

জন্ম ও শিক্ষাজীবনঃ
কায়কোবাদ ১৮৫৭ (বর্তমানে বাংলাদেশ) ঢাকার জেলাতে নবাবগঞ্জ থানার অধীনে আগলা গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন ঢাকা জেলা জজ কোর্টের একজন আইনজীবি শাহামাতুল্লাহ আল কোরেশীর পুত্র। কায়কোবাদ ঢাকাতে পোগোজ স্কুল এবং সেইন্ট গ্রেগরী স্কুলে অধ্যয়ন করেন। তারপর তিনি ঢাকা মাদ্রাসাতে ভর্তি হন যেখানে তিনি প্রবেশিকা পরীক্ষা পর্যন্ত অধ্যয়ন করেছিল। উপরন্তু, তিনি পরীক্ষা দেননি, বদলে তিনি পোস্টমাস্টারের চাকুরী নিয়ে তার স্থানীয় গ্রামে ফিরে আসেন, যেখানে তিনি অবশর গ্রহণের আগ পর্যন্ত কাজ করেছেন। ১৯৩২ সালে, তিনি কলকাতাতে অনুষ্ঠিত বঙ্গীয় মুসলিম সাহিত্য সম্মেলন-এর প্রধান অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

কাব্যগ্রন্থঃ
বিরহ বিলাপ (১৮৭০) (এটি তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ)[১]
কুসুম কানন (১৮৭৩)
অশ্রুমালা (১৮৯৬);
মহাশ্মশান (১৯০৪), এটি তারঁ রচিত মহাকাব্য
শিব মন্দির (১৯২১),
অমিয় ধারা (১৯২৩),
শ্মশানভষ্ম (১৯২৪)[২]
মহররম শরীফ (১৯৩৩), ‘মহররম শরীফ’ কবির মহাকাব্যোচিত বিপুল আয়তনের একটি কাহিনী কাব্য।
শ্মশান ভসন (১৯৩৮)।

মৃত্যুবরণঃ
কায়কোবাদ দীর্ঘ জীবন লাভ করেছিলেন। ঐতিহাসিক সিপাহী বিপ্লবের বছরে সেই ১৮৫৭ সালে তার জন্ম এবং তিনি মৃত্যুবরণ করেন বাংলাদেশ এর মহান ভাষা আন্দোলনের পূর্ব বছরে ১৯৫১ সালে। ১৯৫১ সালের ২১ জুলাই।

পুরস্কার ও সম্মাননাঃ
বাংলা মহাকাব্যের অস্তোন্মুখ এবং গীতিকবিতার স্বর্ণযুগে মহাকবি কায়কোবাদ মুসলমানদের গৌরবময় ইতিহাস থেকে কাহিনী নিয়ে ‘মহাশ্মশান’ মহাকাব্য রচনা করে যে দুঃসাহসিকতা দেখিয়েছেন তা তাঁকে বাংলা সাহিত্যের গৌরবময় আসনে স্থান করে দিয়েছে (নুরুল আমিন রোকন, সাপ্তাহিক মানচিত্র)। সেই গৌরবের প্রকাশে ১৯৩২ সালে বঙ্গীয় মুসলিম সাহিত্য সম্মেলনের মূল অধিবেশনে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন কবি কায়কোবাদ। তিনি বাঙালি মুসলমান কবিদের মধ্যে প্রথম সনেট রচয়িতা। তিনি আধুনিক বাংলাসাহিত্যের প্রথম মুসলিম কবি।

কায়কোবাদ নিয়ে গুরুত্ব পূর্ণ প্রশ্ন গুলোঃ
প্রশ্নঃ ‘আযান’ কবিতাটি কার রচনা? উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ ‘মহাশ্মশান’ মহাকাব্যের কবি কে?উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ নিচের কোনটি কায়কোবাদ রচিত মহাকাব্য? উত্তরঃ মহাশ্মশান
প্রশ্নঃ অশ্রুমালা’র কবি কে? উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ কায়কোবাদের মূল নাম কি? উত্তরঃ কাজেম আল কোরেশী
প্রশ্নঃ ‘কায়কোবাদের প্রথম কাব্যগ্রন্থ কোনটি? উত্তরঃ বিরহ বিলাপ
প্রশ্নঃ নিচের কোনটি মুসলমান রচিত মহাকাব্য?উত্তরঃ মহাশ্মশান
প্রশ্নঃ কোনটি মহাকাব্য? উত্তরঃ মহাশ্মশান
প্রশ্নঃ কোন বিষয়ের উপর ভিত্তি করে ‘মহাশ্মশান’ কাব্য রচিত? উত্তরঃ পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধ
প্রশ্নঃ মহাশ্মশান কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কবি কায়কোবাদের আসল নাম কি? উত্তরঃ মোহাম্মদ কাজেম আল কোরেশী
প্রশ্নঃ কোনটি ‘মহাকাব্য’? উত্তরঃ প্যারাডাইস লস্ট
প্রশ্নঃ বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলিম মহাকবি কে? উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ কায়কোবাদের কোন গ্রন্থটি পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধের পটভূমিতে রচিত?উত্তরঃ মহাশ্মশান
প্রশ্নঃ ‘মহাশ্মশান’ মহাকাব্য কোন সালের পানিপথের যুদ্ধের ওপর ভিত্তি করে রচিত?উত্তরঃ ১৭৬১
প্রশ্নঃ কবি কায়কোবাদ রচিত ‘অশ্রুমালা’ কোন জাতীয় রচনা? উত্তরঃ গীতিকাব্য
প্রশ্নঃ ‘অশ্রুমালা’ ও ‘মহাশ্মশান’ কার রচনা? উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ ‘আযান’ কবিতাটি কার রচিত? উত্তরঃ কায়কোবাদ
প্রশ্নঃ কায়কোবাদের রচনা নয় কোনটি? উত্তরঃচিন্তাতরঙ্গিনী
প্রশ্নঃ ‘শিবমন্দির’ কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কে? উত্তরঃ কায়কোবাদ

কোন ভূল থাকলে কমেন্ট করবেন। মানুষ মাত্র ভূল। ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।