কমার্স কলেজ: একটি প্রেমের প্রস্তাবে দুজন বহিষ্কার, ৯ জনের ভর্তি বাতিল

love propose

অবশেষে সেই দুজন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে ঢাকা কমার্স কলেজ কর্তৃপক্ষ। বাকি ৯ জনের ভর্তি বাতিল করা হয়েছে। গত ১২ মে এক নোটিশে বিষয়টি জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একই সাথে কলেজের সব শিক্ষার্থীকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। এদিকে এই ঘটনায় সোশাল মিডিয়ায় পক্ষে-বিপক্ষে ফের বিতর্কের ঝড় উঠেছে।

কি ঘটেছেল সেই দিন?
সপ্তাহখানেক আগের ঘটনা। রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছেন কয়েকজন শিক্ষার্থী। একটু পরে বাকি শিক্ষার্থীরা হাতে হাত ধরে দুজনকে আলাদা করে মানববৃত্তের ভেতরে নিয়ে আসে। এরপর? বৃত্তের ভেতরে ছেলেটি হাঁটু গেড়ে বসে মেয়েটির হাতে একটি আংটি পরিয়ে প্রপোজ করে। মেয়েটি ছেলের প্রপোজে সায় দেয় ও পরস্পরকে জড়িয়ে ধরে।

সোশাল মিডিয়ায় তোলপাড়
এর পরই সোশাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পড়ে সেই ভিডিও। তারপর থেকেই শুরু হয়ে যায় পক্ষ-বিপক্ষের কথাচালাচালি। কেন বহিষ্কার করা হলো? এই ঘটনাটি পরিবারের সমন্বয়হীনতা- এমনটা মনে করছেন অনেকেই। অনেকেই আবার দায়ী করছেন রাজধানীতে বিনোদনের অভাব, শিক্ষার অভাব ও স্কুল-কলেজের শুধু টিউশন ফি নিয়ে মাথাব্যথাকে। সোশাল মিডিয়ায় যে বিতর্ক ঘুরে বেড়াচ্ছে এখনও সেই বিতর্কের হাওয়া শিক্ষার্থীদের পক্ষেই রয়েছে।

অনেকেই এই ভিডিওটিকে ‘রোমান্টিক’ আখ্যা দিয়ে ফেসবুক, গুগল প্লাস, ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করছেন। ইউটিউবেও একাধিক নামে ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। অথচ রোমান্টিসিজমের ফল পাচ্ছে বাকি ৯ জন শিক্ষার্থীও।

ঢাকা কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ জানিয়েছেন, শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য এই ১১ জন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটি :